কথা বিশ্বাস করার পূর্বে তার কথার সত্যতা ভালমত যাচাই করেই বিশ্বাস করা উত্তম

কথা বিশ্বাস করার পূর্বে তার কথার সত্যতা ভালমত যাচাই করেই বিশ্বাস করা উত্তম

গ্রামে এমনিতেই নেটওয়ার্ক কম, তারপরে সেই গ্রামে যদি হয় মাটির ঘর তবেতো কথাই নাই। এমনই এক গ্রামের শেষ মাথায় নির্জনে মাটির ঘরে মসজিদের ইমাম সাহেব বসবাস করতেন।হুজুরের থাকার চৌকিতে মোবাইল রাখলে কল ডুকতো না তবে ঘরের উচু স্থানে রাখলে কল ডুকতো। সমাজের লোকজন প্রয়োজনে ইমাম সাহেবকে ফোন দিলে কেউ পাইতো, কেউ পাইতো না। ফোন ডুকলে হুজুর ঘরের বাইরে এসে কথা বলতো, ঘরের ভিতর কথা বলা যাইতো না । বিশেষ করে শীতের দিনে হুজুরের অনেক কষ্ট হত। হুজুরের কষ্টের কথা শুনে এক আপনজন পরামর্শ দিল, বাড়ীতে মোবাইলের এন্টিনা লাগান, ঘরে শুয়ে শুয়ে কথা বলতে পারবেন।হুজুর এন্টিনা লাগালো এখন কম্বলের নিচে শুয়ে শুয়ে কথা বলতে পারে।

সমাজে কিছু লোক আছে তারা শুধু প্যাচ লাগায়। এমনই একজন দেখে হুজুরের বাড়ীতে টেলিভিশনের এন্টিনা। সে তার ঘনিষ্ট লোকজনকে দেখাইলো। তারপর এক শুক্রবার দিনে হুজুর জুমার নামাজে উপুস্থিত হওয়ার পূর্বেই সেই লোক সভাপতির কাছে বিচার দিয়ে প্যাচ লাগাইয়া দিল, বলল,, যে হুজুর টেলিভিশন দেখে তার পিছে নামাজ পরা যাবে না। সভাপতিও তাৎক্ষনিক লোক পাঠিয়ে সত্যতা যাচাই করলো। হুজুর মসজিদে এসেই দেখে পরিবেশ উল্টা, লোকজন ক্ষেপা। সভাপতি বিস্তারিত বললেন। হুজুর বললেন ওটাতো টেলিভিশনের এন্টিনা না, মোবাইলের নেটওয়ার্ক বেশি পাওয়ার জন্য এন্টিনা। চলেন. বলেই সভাপতিকে ঘরে নিয়ে সরেজমিনে দেখালেন।

সভাপতি মসজিদে এসে প্যাচ লাগানো লোকটাকে বলল, শুধুমাত্র এন্টিনা দেখেই ভালমত যাচাই না করেই আন্তাজের উপর পুরা সমাজটার মধ্যে একটা প্যাচ লাগাইয়া দিলি। ইমাম সাহেবের মান সম্মান ইজ্জতের কথা চিন্তা করলি না?

আসলে প্রত্যেক পরিবারে, সমাজে, রাষ্ট্রে এরকম কিছু কুলাঙ্গার আছে যারা কোন ইস্যু পেলে ভাল মত যাচাই না করেই শুধু প্যাচ লাগিয়ে চারিদিকে অশান্তি সৃষ্টি করে। দেখে মোবাইল এন্টিনা বলে টেলিভিশন এন্টিনা। দেখে একটু, বলার সময় বলে প্যাচ লাগানোর মত করে। তাই কারও কথা বিশ্বাস করার পূর্বে তার কথার সত্যতা ভালমত যাচাই করেই বিশ্বাস করা উত্তম এবং সত্যতা যাচাই পূর্বক সিদ্ধান্ত নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

Leave a Reply